728x90 AdSpace

Followers

Latest News
Monday, September 3, 2018

পদবি /উপাধি by স্বপন ভট্টাচার্য



হিন্দু বাঙালিরা সাধারণত তাদের নামের শেষে একটি বংশ নাম বা পদবি ব্যবহার করে। আবার অনেকেই হয়তো তাদের পদবি ছেঁটে ফেলে পরবর্তী সময়ে পাওয়া উপাধি ব্যবহার করে। অনেকে আবার
পদবি ও উপাধি দুই-ই একই সাথে ব্যবহার করে। কেউ কেউ আবার বিখ্যাত বাবা / দাদার মধ্য নামকেই নিজেদের পদবি বানিয়ে নেয়। এই ভাবে অনেক নতুন পদবির সৃষ্টি হয়। একটা উদাহরণ দিই - বিখ্যাত নৃত্যশিল্পী উদয় শঙ্করের উপাধি ছিল 'চৌধুরী'। কিন্তু তিনি তাঁর উপাধি ব্যবহার না করে শুধু উদয় শঙ্কর লিখতেন। তারপর থেকে তাঁর ভাই বা পুত্র কন্যারা তাঁদের পদবি হিসাবে 'শঙ্কর' ব্যবহার করেন।
হঠাৎই আমার মনে হল যে এই পদবি / উপাধিগুলি এখানে লিপিবদ্ধ করলে কেমন হয়! কিন্তু তা লিপিবদ্ধ করতে গিয়ে বেশ কিছু সমস্যার মুখোমুখি হয়ে পড়লাম। হিন্দু বাঙালি কাদের বলব? বহু মানুষ আছেন তাঁরা আদতে বাঙালি নন, কিন্তু তাঁদের কোন এক পূর্ব পুরুষ কোন এক সময় এই বাংলায় বসবাস করতে শুরু করেন ও ক্রমে তাঁরা বাঙালিই হয়ে গেছেন। যেমন, একটা পদবি 'ত্রিবেদী'। আপাত দৃষ্টিতে মনে হবে ত্রিবেদীরা বাঙালি নয়। তাহলে প্রশ্ন জাগে রামেন্দ্র সুন্দর ত্রিবেদীও কি বাঙালি নন। আবার ধরুন 'ওঝা' একটি পদবি। ভাষা তাত্ত্বিকেরা কেউ কেউ মনে করেন 'উপাধ্যায়' পদবি বিবর্তিত হয়ে 'ওঝা' হয়ে গেছে। সে যাই হোক, আমার প্রশ্ন এই ওঝা পদবিকে আমরা কি বাঙালি পদবি বলব? যদি না বলি তবে যিনি আমাদের বাংলায় রামায়ণ পড়িয়েছেন সেই কৃত্তিবাস ওঝাও বাঙালি নন। আর সবচেয়ে বড় কথা কোন ব্রাহ্মণই তো তাহলে বাঙালি নন। কারণ বাংলাতে তো কোন ব্রাহ্মণ ছিলই না বলে শুনেছি। কনৌজ থেকে যে ছয় ঘর ব্রাহ্মণকে নদিয়া জেলায় আনা হয়েছিল বাংলার ব্রাহ্মণেরা তো তাদেরই উত্তর পুরুষ। এ বিষয়ে অবশ্য মতভেদ আছে। অনেক মনে করেন যে সেন বংশের রাজত্ব কালে বাংলায় কয়েকটি ব্রাহ্মণ পরিবারকে নিয়ে আসা হয়। এটি অবশ্য আজকের আলোচ্য বিষয় নয় তবে বাংলায় যে আগে কোন ব্রাহ্মণ ছিল না তা কিন্তু সকলেই স্বীকার করে নিয়েছেন।
যে তালিকাটি আমি তৈরি করার চেষ্টা করেছি সেটি অবশ্যই অসম্পূর্ণ। আপনারা যদি কোন হিন্দু বাঙালির পদবি/উপাধির সন্ধান দেন তবে আমি সেগুলি সংযোজিত করতে পারি। অনেকেই একই সঙ্গে দুটি বা তিনটি পদবি/উপাধি ব্যবহার করেন। যেহেতু সেগুলি আলাদা পদবি /উপাধি তাই আমি আলাদা করেই দেখাবার চেষ্টা করেছি। যাতে কোন একটি পদবি/উপাধি সহজে খুঁজে পাওয়া যায় তাই বর্ণানুক্রমে সাজিয়ে দেবার চেষ্টা করেছি।
অ - অধিকারী,
আ - আইকত, আইচ, আইন, আওন, আচার্য, আটা, আঢ্য, আতর্থী, আদক, আদিত্য, আশ, আহীর,
ই - ইন্দু, ইন্দ্র,
উ - উকিল, উপাধ্যায়,
ও - ওঝা, ওয়াদেদ্দার,
ক - কপাট, কণ্ঠ, কবিরাজ, কর, করঞ্জাই, করণ, করাতি, কর্মকার (কামার), কয়াল, কংস বণিক, কাটারি, কাঁঠাল, কাঁড়ার, কাঞ্জি, কাঞ্জিলাল, কানুনগো, কাপাস, কাবাসি, কারক, কাহার, কীর্তনিয়া, কুইল্যা, কুণ্ডু, কুন্দল, কুমার, কুশারী, কেশ, কোনার, কোটাল, কোলে, কোয়ারি, কৌশিক,
খ - খাটুয়া, খাঁড়া, খামারু, খান, খাস্তগীর, খাসনবিশ, খিলাড়ি,
গ - গঙ্গোপাধ্যায় (গাঙ্গুলি), গড়গড়ি, গড়াই, গণ, গায়েন (গাইন), গিরি, গুন (গুঁইন), গুঁই, গুছাইত, গুনিন, গুপ্ত, গুপ্তভায়া, গুহ, গোপ, গোলদার, গোস্বামী, গৌতম,
ঘ - ঘটক, ঘড়া, ঘোড়ুই, ঘোষ, ঘোষজায়া, ঘোষাল,
চ - চক্রবর্তী, চট্টোপাধ্যায় (চ্যাটার্জি), চন্দ, চন্দ্র, চট্টখণ্ডী, চট্টগ্রাম, চম্পাটি, চাকলাদার, চাকী, চেইল, চোংদার, চৌধুরী,
ছ - ছাতুই,
জ - জানা, জোয়ারদার,
ঝ - ঝা,
ট - টিকাদার, টিকায়েত,
ঠ - ঠাকুর, ঠাকুরতা,
ড - ডাক, ডাকুয়া, ডোম,
ঢ - ঢালি, ঢোল, ঢ্যাং,
ত - তপাদার, তলাপাত্র, তালুকদার, তরফদার, তা, তাঁতি, তাম্বুলি, তিওয়ারি, তোপদার, ত্রিপাঠি, ত্রিবেদী,
দ - দণ্ডপৎ, দত্ত, দফাদার, দরিপা, দল (ডল), দস্তিদার, দাঁ, দাম, দালাল, দাস (দাশ), দিকপতি, দিন্দা, দ্বিবেদী, দীর্ঘাঙ্গী, দুয়ারি, দে, দেব, দেবনাথ, দোলুই, দ্রাক্ষি,
ধ - ধর, ধাড়া, ধীবর,
ন - নট্ট, নন্দ, নন্দন, নন্দী, নস্কর, নাইয়া, নাগ, নাথ, নায়েক, নাহা, নিয়োগি,
প - পতিতুণ্ড, পত্রনবিশ, পণ্ডিত , পর্বত, পরামাণিক (প্রামাণিক), পয়রা, পাইক, পাইন, পাকড়াশী, পাখিরা, পাঁজা, পাঁজি, পাঠক, পাত্র, পান, পাণ্ডা, পান্ডে, পাল, পালিত, পালোধি, পাশোয়ান, পাহাড়ি, পুরকায়স্থ (পুরকাইত), পোদ্দার, প্রজাপতি, প্রধান, প্রসাদ,
ফ - ফাদিকার,
ব - বক্সী, বটব্যাল, বড়াল, বড়ুয়া, বণিক, বন্দ্যোপাধ্যায় (ব্যানার্জি), বর, বরকন্দাজ, বরাট, বর্ধন, বর্মন, বল, বল্লভ, বসাক, বসু, বাউড়ি, বাগ, বাগচী, বাগল, বাগুই, বাচস্পতি, বাড়রি, বারুই, বালা, বায়েন (বাইন) , বিশ্বাস, বিশী, বিষয়ী, বীট, বেজ (বেইজ), বেড়া, বেদজ্ঞ, বেলেল, বৈদ্য, বৈরাগী, ব্যাপারি, ব্রহ্ম,
ভ - ভক্ত, ভঞ্জ, ভড়, ভদ্র, ভট্ট, ভট্টশালী, ভট্টাচার্য, ভাওয়াল, ভাণ্ডারি, ভাদুড়ি, ভাবক, ভাস্কর, ভুঁইয়া, ভূষণ, ভৌমিক,
ম - মজুমদার, মতিলাল, মণ্ডল, মরাল, মল্লিক, মহলানবিশ, মহারাজ, মাইতি, মাঝি, মান্না, মারিক, মার্জিত, মাল, মালাকার, মালি, মালিক, মাহাতো, মিত্র, মিদ্যা, মিশ্র, মিস্ত্রি, মুন্সী, মুখোপাধ্যায় (মুখার্জি), মুখুটি, মুৎসুদ্দি, মুদী, মুস্তাফি, মুহুরী, মৃধা, মেটে, মৈত্র, মোদক, মোহন্ত, (মহান্তি), মৌলি, মৌলিক,
য - যাদব, যোগী,
র - রক্ষিত, রজক, রাজবংশী, রানা, রাম, রায়, রাহা, রুইদাস, রুদ্র,
ল - লশকর, লহরী, লায়েক, লাহা, লাহিড়ী, লেট, লোধ, লোহার,
শ - শঙ্কর, শর্মা, শাঁখারি, শাসমল, শিকদার, শিহি (শী), শীল, শীট, শ্রীমল, শ্রীমানী, শেঠ, শূর,
ষ - ষড়ঙ্গী,
স - সমাজদার, সমাজপতি, সমাদ্দার, সর, সরকার, সরখেল, সর্দার, সর্বজ্ঞ, সানা, সাঁই, সাঁতরা, সাধু, সাধুখাঁ, সানা, সান্যাল, সান্যায়মত, সামন্ত, সাঁপুই, সাবুই, সাহা, সাহানা, সিদ্ধান্ত, সিংহ (সিনহা), সূত্রধর (সুতার), সেন, সেনাপতি, সোম, স্বর্ণকার,
হ - হাইট, হাওলাদার, হাজরা, হাজারি, হাতি, হালদার, হাটুই, হুই, হোড়, হোম,
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Thanks you Visit Awesome Raja.
www.awesomeraja.ml
[email protected]

Item Reviewed: পদবি /উপাধি by স্বপন ভট্টাচার্য Rating: 5 Reviewed By: Sacred Games